টার্কির ভ্যাকসিনেশন প্রোগ্রাম

টার্কির ভ্যাকসিনেশন প্রোগ্রাম (Vaccination programme for Turkey) :-

ক্রমিক নং বয়স( দিন/সপ্তাহ) মার্কেট টার্কি ব্রিডার হেন টার্কি ব্রিডার টোম টার্কি
০১ ০১-০৩ দিন পিজিওন পক্স ভ্যাক. পিজিওন পক্স ভ্যাক্স. পিজিওন পক্স ভ্যাক.
০২ ০৪-০৬ দিন এন.ডি ল্যাসোটা এন.ডি ল্যাসোটা এন.ডি ল্যাসোটা
০৩ ২০-২৫ দিন এন.ডি ল্যাসোটা এন.ডি ল্যাসোটা এন.ডি ল্যাসোটা
০৪ ০৭-০৮ সপ্তাহে কৃমি নাশক কৃমি নাশক কৃমি নাশক
০৫ ০৮-০৯ সপ্তাহে আরডিভি আরডিভি আরডিভি
০৬ ০৯-১০ সপ্তাহে ফাউল কলেরা ভ্যাক. ফাউল কলেরা ভ্যাক. ফাউল কলেরা ভ্যাক.
০৭ ১৩-১৪ সপ্তাহে ফাউল কলেরা ভ্যাক. ফাউল কলেরা ভ্যাক. ফাউল কলেরা ভ্যাক.
০৮ ১৪-১৫ সপ্তাহে কৃমি নাশক কৃমি নাশক কৃমি নাশক
০৯ ১৬-১৭ সপ্তাহে এন.ডি ল্যাসোটা এন.ডি ল্যাসোটা এন.ডি ল্যাসোটা
১০ ১৮ সপ্তাহে        – ফাউল কলেরা ভ্যাক. ফাউল কলেরা ভ্যাক.
১১ ২১-২২ সপ্তাহে        – এন.ডি ল্যাসোটা এন.ডি ল্যাসোটা
১২ ২৪ সপ্তাহে         – ফাউল কলেরা ভ্যাক. ফাউল কলেরা ভ্যাক.
১৩ ২৫ সপ্তাহে        – কৃমি নাশক কৃমি নাশক
১৪ ২৭ সপ্তাহে        – ফাউল পক্স ভ্যাক. ফাউল পক্স ভ্যাক.
১৫ ২৮ সপ্তাহে        – এন.ডি ল্যাসোটা এন.ডি ল্যাসোটা
১৬ ২৯-৩০ সপ্তাহে        – ফাউল কলেরা ভ্যাক. ফাউল কলেরা ভ্যাক.
১৭ ৩৬-৩৭ সপ্তাহে এন.ডি ল্যাসোটা এন.ডি ল্যাসোটা

বিঃদ্রঃ এন.ডি ল্যাসোটা ভ্যাকসিন (Newcastle Disease Lasota strain Vaccine)চোখে ড্রপ অথবা খাবার পানিতে (Drinking water) ব্যবহার করতে হবে। আরডিভি থাই মাংস পেশীতে ইনজেকশন,পিজিওন পক্স ভ্যাকসিন ও ফাউল পক্স ভ্যাকসিন থাই অথবা ডানার চামড়ায় পালক ও শিরা বিহীন স্থানে (Wings web) খোঁচা মারার মাধ্যমে ,ফাউল কলেরা রোগের ভ্যাকসিন ঘারের চামড়ার নীচে (S.C/Subcutanious inj.) ইনজেকশনের মাধ্যমে ব্যবহার করতে হবে। উল্লেখ্য যে, এ ভ্যাকসিন প্রোগ্রামে টার্কির কোরাইজা রোগের ভ্যাকসিন উল্লেখ করা হয় নি। কারণ টার্কি ও মুরগির কোরাইজা রোগের কারণ ভিন্ন ভিন্ন। মুরগির কোরাইজা রোগের কারণ হলো হিমোফিলাস প্যারা-গ্যালিনেরাম (Hemophilus Para-gallinarum)।  সংক্ষেপে হিমোফিলাস গ্যালিনেরাম ব্যাকটেরিয়া নামে অধিক পরিচিত। অপর  দিকে, টার্কির কোরাইজা রোগের জীবাণু হলো এলকালিজেনস ফ্যাকালিস (Alcaligens Faecalis) । তাই এক্ষেত্রে মুরগির ইনফেকশাস কোরাইজা রোগের ভ্যাকসিন টার্কির কোরাইজা রোগের ক্ষেত্রে ব্যবহার প্রযোজ্য হবে না।

এছাড়াও সংশ্লিস্ট এলাকার টার্কি প্রাকটিশনার টার্কির শারীরিক অবস্থা, সমসাময়িক আবহাওয়া, এলাকায় রোগের প্রাদুর্ভাব, সংশ্লিস্ট খামারে রোগের রোগের প্রকোপ ইত্যাদি সার্বিক বিবেচনা সাপেক্ষে টার্কির ভ্যাকসিন তালিকা খামারিকে তৈরি করে দিতে পারবেন।

উল্লেখ্য যে, মার্কেট টার্কি বলতে মাংসের উদ্দেশে যে টার্কি উৎপাদন করা হয়। মার্কেট টার্কি ১৮ সপ্তাহ বয়সের পূর্বেই খামার থেকে মার্কেটে বিক্রি করে দেওয়া উচিৎ।